রায় নিয়ে সহিংসতার চেষ্টা করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না : ডিএমপি কমিশনার

0
186

বহুল আলোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় নিয়ে কোনো ধরনের হুমকি নেই বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া। তবে কেউ সহিংসতার চেষ্টা করলে কাউকে এক বিন্দু ছাড় দেওয়া হবে না বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনে আয়োজিত ‘ডিএমপি শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে’ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা জানান।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, আগামী বুধবার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়। এ রায়কে কেন্দ্র করে নিরাপত্তাজনিত কোনো হুমকি নেই এবং নিরাপত্তা বিঘ্নিত হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এটা আদালতের একটা স্বাভাবিক কার্যক্রমের অংশ।

রায় উপলক্ষে পুলিশ সতর্ক রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের নজরদারি রয়েছে। এ রায়কে কেন্দ্র করে কোনো স্বার্থান্বেষী মহল সহিংসতার চেষ্টা করলে তাদের কঠোর হাতে দমন করা হবে, কোনো ধরনের অপতৎপরতা বরদাসত করা হবে না। নগরবাসীর উদ্দেশে তিনি বলেন, রায়কে ঘিরে নিরাপত্তা নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই। নগরবাসীর জান-মালের নিরাপত্তা দিতে পুলিশ প্রস্তুত।

ডিএমপি কমিশনার আরও বলেন, জনগণের জান-মাল রক্ষা করা আমাদের সাংবিধানিক দায়িত্ব। কেউ দেশের স্বাভাবিক নিরাপত্তা বিঘ্ন করার চেষ্টা করলে কঠোরভাবে দমন করে আইনের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে।

২০১৩-১৪ সালের জ্বালাও-পোড়াও, নৈরাজ্যের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে তিনি কমিশনার বলেন, সে সময়ে যে সহিংসতা চালানো হয়েছিল সেই দিন শেষ। ২০১৩-১৪ সালের পুনরাবৃত্তির চেষ্টা করলে সেই স্বার্থান্বেষী মহলকে কঠোর হাতে দমন করা হবে। ২০১৬ সালে বিদেশিদের হত্যা করে দেশকে অকার্যকর রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু আমাদের পুলিশ সদস্যরা দেশের গণতন্ত্র বাধাগ্রস্ত হতে দেয়নি। টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত জঙ্গিবিরোধী অনেকগুলো সফল অভিযান পরিচালনা করে আমরা সারাবিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছি।

অনুষ্ঠানে কাউন্টার টেরোরিজমের প্রধান মনিরুল ইসলাম পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্য বলেন, আগামীতে অনেক হুঙ্কার-ধুঙ্কার আমরা শুনতে পাচ্ছি। এ হুঙ্কার-ধুঙ্কারে কোনো কান দেওয়া চলবে না। আইন-শৃঙ্খলা বিঘ্ন করার ক্ষেত্র যদি কেউ চেষ্টা করে, কেউ যদি রাস্তায় নেমে গাড়ি ভাঙচুর করার চেষ্টা করে, কেউ যদি অগ্নি সন্ত্রাস কিংবা বোমা মারার চেষ্টা করে তবে তাকে শক্ত হাতে দমন করা আমাদের আইনগত কর্তব্য। যেহেতু আমাদের সব কল্যাণ দেখা হচ্ছে, বেতন-ভাতা পাচ্ছি। কাজেই আমাদের দায়িত্বটা সকলে পালন করবো। টিম ডিএমপি অতীতে যেভাবে কাজ করেছে ভবিষ্যতেও কাজ করবে।

অনুষ্ঠানে ডিএমপি পুলিশ সদস্যদের ৮৫০ কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে ৫২ লাখ ৬১ হাজার টাকার বৃত্তি ও সনদ তুলে দেন কমিশনার। এ সময় কমিশনারের সহধর্মীনিসহ ডিএমপির উচ্চ পর্যায়ের সকল কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here