রোশানকে নিয়ে তিন ছবি পরিচালনায় ইকবাল

0
56

ঢালিউডের একজন প্রভাবশালী প্রযোজক মো. ইকবাল। ২০১০ সালে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘ভালোবাসলেই ঘর বাধা যায় না’ ছবিটির মাধ্যমে তার প্রযোজনা জীবন শুরু হয়। প্রথম ছবিই সুপারহিট হয়। এরপর একে একে তিনি নয়টি ছবি প্রযোজনা করেছেন। যার প্রতিটিই ব্যবসাসফল।

সেই সফল প্রযোজক ইকবাল এবার নামতে চলেছেন পরিচালনায়। নতুন বছরের শুরুতেই তিনি দিলেন একসঙ্গে তিনটি ছবি নির্মাণের ঘোষণা। সেগুলো হচ্ছে ‘ফাইটার’, ‘রিভেঞ্জ’ এবং ‘গুলশানের চামেলী’। তিনটিতেই নায়ক থাকছেন হালের সেনসেশন রোশান।

ইকবালের পরিচালনায় তিনটি ছবির মধ্যে ‘ফাইটার’ প্রযোজনা করছে মের্সাস জে প্রোডাকশন। ‘রিভেঞ্জ’ প্রযোজনা করছে অনুরাগ ট্রেডার্স এবং ‘গুলশানের চামেলী’র প্রযোজনায় রয়েছেন সুনান মুভিজ।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এফডিসির জহির রায়হান মিলনায়তনে জমকালো এক মহরত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ছবিগুলোর নাম ঘোষণা দেন নয়া পরিচালক ইকবাল। মহামারি করোনার কারণে দীর্ঘ দিন পর এটিই জমকালো মহরত অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন গুণী নির্মাতা সোহানুর রহমান সোহান।

এ সময় সেখানে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রযোজক নেতা খোরশেদ আলম খসরু, সামচুল আলম, আলিমুল্লাহ খোকন, কালাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিপু, শাহ আলম কিরণ, সেলিম খান, অভিনেতা রোশান, ওমর সানী, শিবা শানু, নাদের খান, অমিত হাসান, চিত্রনায়িকা শিরিন শিলাসহ অনেকে। উপস্থিত সবাই করোনার এই দুঃসময়ে ইকবালের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান।

কেন প্রযোজনা ছেড়ে পরিচালনায়? ইকবাল বলেন, ‘যখন প্রযোজনা শুরু করি তখন থেকেই ইচ্ছা ছিল পরিচালনায় আসার। এতদিন ধরে নিজেকে প্রস্তুত করেছি। তাছাড়া প্রযোজনা তো ছাড়ছি না। প্রযোজক হিসেবে আমি কাজী হায়াত, শাহীন সুমন, জাকির হোসেন রাজু, মালেক আফসারীর মত গুণী পরিচালকদের দিয়ে ছবি বানিয়েছি। তাদের সঙ্গে সহপরিচালক হিসেবে কাজও করেছি, এত বছর ধরে শিখেছি। তাই পরিচালক হিসেবেও আমি সফল হবো বলে বিশ্বাস।’

ইকবাল আরও বলেন, ‘তিনটি সিনেমার গল্পই আমার নিজের। এগুলো নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন। চ্যালেঞ্জ নিয়ে কাজ করব।’ ইকবাল উল্লেখ করেন, ‘আমার এতদূর আসার পেছনে একমাত্র অবদান নায়ক শাকিব খানের। তার জন্যই আমি আজ এখানে। তিনি আমাকে সবসময় সব বিষয়ে সহায়তা করেছেন, এখনো করছেন।’

অন্যদিকে, নায়ক শাকিব খানের একটা অডিও বার্তা নিজের মোবাইল থেকে বাজিয়ে শোনান ইকবাল। সেখানে কিং খান বলেন, ‘ইকবাল ভাই আমার খুবই ঘনিষ্ঠ একজন মানুষ। তার জন্য সব সময় শুভ কামনা। তিনি প্রযোজক হিসেবে সফল, এবার পরিচালক হিসেবেও যেন সফল হয় সেই কামনা করি।’

ছবি তিনটিতে সম্পৃক্ত হওয়া প্রসঙ্গে চিত্রনায়ক রোশান বলেন, ‘ইকবাল ভাই গুলশানের এক রেস্টুরেন্টে দেখা করতে বলেন আমাকে। সেখানে তিনি ছবিগুলোর গল্প শুনান আর বলেন, রোশান তিনটি ছবিতেই নায়ক হিসেবে তোমাকেই আমার লাগবে। আমি কৃতজ্ঞ তার মত একজন প্রযোজক প্রথম পরিচালনায় আমাকে ভেবেছেন। তিনটি ছবির গল্পই বেশ সুন্দর। এর মধ্যে ‘ফাইটার’ অ্যাকশনধর্মী আর ‘গুলশানের চামেলী’র গল্প তো অসাধারণ। এ ধরনের গল্প সচরাচর দেখা যায় না।’

প্রসঙ্গত, তিনটি ছবির মধ্যে ‘ফাইটার’-এ নায়িকা থাকছেন শিরিন শিলা। তিনি বলেন, ‘আমার জন্য ২০২১ সালের শুরুটা ভালো হলো। আমি চেষ্টা করব সুন্দর ভাবে ছবিটাতে অভিনয় করতে।’ ইকবাল জানালেন, আগামী মাস থেকে ‘ফাইটার’-এর শুটিং শুরু হবে। এরপর ‘রিভেঞ্জ’ ও ‘গুলশানের চামেলী’র শুটিং হবে। সূত্র: ঢাকাটাইমস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here