শেষ মিনিটের গোলে ম্যান সিটির জয়

0
26

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথম কোয়ার্টার ফাইনাল জিতে সেমিতে এক পা দিয়ে রাখলো ম্যানচেস্টার সিটি। তবে ম্যাচটির সমাপ্তি ঘটে নাটকীয়তায়। ৮৪ মিনিট পর্যন্ত এক গোলে এগিয়ে ছিল ম্যান সিটি। এরপরই বরুশিয়াকে সমতায় ফেরায় মার্কো রিউস। ড্রর পথে হাঁটা ম্যাচটির অন্তিম মুহূর্তে গোল করে বসেন ফোডেন। তাতেই স্বস্তির জয় পায় পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) রাতে ইতিহাদ স্টেডিয়ামে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে ২-১ গোলে হারিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। কেভিন ডে ব্রুইনে স্বাগতিকদের এগিয়ে নেওয়ার পর সমতা টানেন মার্কো রিউস। আর জয়সূচক গোলটি করেন ফোডেন।

ঘরের মাঠে শুরু থেকেই বল দখলে এগিয়ে ছিল ম্যান সিটি। ১৯তম মিনিটে তার ফলও পেয়ে যায় তারা। এ সময় দলকে এগিয়ে নেন ডে ব্রুইনে। যদিও গোলটি এসেছে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার এমরে কানের ভুলে।

কেভিন ডি ব্রুইন বল পেয়ে ডি-বক্সের ভেতর বাঁ দিকে বাড়িয়েছিলেন ফোডেনকে। তার পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান দিকের বাইলাইনের কাছ থেকে কাট ব্যাক করেন রিয়াদ মাহরেজ। ডান পায়ের শটে বাকিটা সারেন ডি ব্রুইন।

৮৪তম মিনিট পর্যন্ত ওই এক গোলেই এগিয়ে ছিল ম্যান সিটি। কিন্তু হঠাৎ তাদের মুখের হাসি মিলিয়ে দেন মার্কো রিউস। হলান্ডের পাস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে ডান পায়ের শটে এদেরসনকে পরাস্ত করেন তিনি। তখন ম্যাচ ১-১ সমতায়।

তবে শেষ রক্ষা হয়নি ডর্টমুন্ডের। নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন ফোডেন। ডে ব্রুইনের দারুণ ক্রস ডি-বক্সে ইলকাই গিনদোয়ান নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ফোডেনকে পাস দেন। সহজেই বাকি কাজ সারেন ইংলিশ মিডফিল্ডার। 

জয়ের আনন্দে মাঠ ছাড়ে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা।

আগামী বুধবার (১৪ এপ্রিল) ফিরতি লেগে মুখোমুখি হবে দুই দল। ঘরের মাঠে ম্যান সিটিকে ২-০ ব্যবধানে হারাতে পারলেই সেমিতে যাওয়ার সুযোগ থাকবে ডর্টমুন্ডেরও।

সূত্র : একুশে টেলিভিশন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here