ষড়যন্ত্র ছাড়া বিএনপির কোনো পথ নেই: কাদের

0
93

অপরাধের শৃঙ্খলে আবদ্ধ হয়ে বিএনপি ক্রমেই ষড়ন্ত্রের পথ বেছে নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এই ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নেওয়া ছাড়া বিএনপির আর কোনো উপায় নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন।

বুধবার (২৮ আগস্ট) দুপুরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় এ আলোচানা সভার আয়োজন করেন। বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিএনপি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ক্রমেই তারা আপন অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে যাচ্ছে। আর এ কারণে ক্রমেই তারা জনবিচ্ছিন্ন হচ্ছে। সে কারণে রাজনীতিতে ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নেওয়া ছাড়া তাদের এখন আর অন্য কোনো উপায় নেই। আর এটা করতে গিয়ে বিএনপি একেকবার একেক ইস্যু খুঁজে বেড়াচ্ছে। অবশেষে রোহিঙ্গা ইস্যুর ওপর তারা ভর করেছে। বিএনপি আজকে এই রোহিঙ্গাদের নিয়ে নতুন ইস্যু খুঁজে নতুন খেলায় মেতে উঠেছে। স্বাভাবিক রাজনীতি করতে তারা ব্যর্থ হয়ে এখন ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। সর্বশেষ আমরা দেখছি সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য রোহিঙ্গা ইস্যুকে তারা রাজনীতির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের নিয়ে বিদেশি কিছু এনজিও পরোক্ষভাবে ষড়যন্ত্র করছে। মিয়ানমারকে সহযোগিতা করছে। এই বিদেশি এনজিও’র মধ্যে পাকিস্তানপন্থী এনজিও আছে। এরা একদিকে বঙ্গবন্ধুর দুই খুনিকে পাকিস্তানে আশ্রয় দিয়েছে। এরা পদে পদে আমাদের বিপদে ফেলতে চায়। আমেরিকা ও কানাডা থেকে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ চলছে। কিন্তু পাকিস্তানে যে দুই খুনি আছেন, তাদের ফেরত দিচ্ছে না দেশটি। আমি জানি না এই পরিস্থিতি কবে পরিবর্তন হবে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলগীরের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, মির্জা ফখরুল সাহেব আগস্ট এলে রাজনীতিতে আপনারা বেপরোয়া হয়ে যান। ইতিহাসের আদালতে, প্রচলিত আদালতে, জনতার আদালতে প্রমাণিত হয়ে গেছে ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্টের মাস্টারমাইন্ড আপনারা। ১৫ আগস্টের মাস্টারমাইন্ড আপনাদের দলের প্রতিষ্ঠাতা।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যায়ের উপাচার্য অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। আরও বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিব) সভাপতি ডা. ইকবাল আর্সলান, বিএমএ’র মহাসচিব ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী, স্বাচিবের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এমএ আজিজ, বিএসএমএমইউ’র উপ-উপাচার্য শহীদুল্লাহ সিকদার, অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, অধ্যাপক মুহাম্মদ রফিকুল আলম, ডা. মো. আতিকুর রহমান প্রমুখ। সূত্র: বাংলানিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here