সংগীতের সংবাদ মুল্যায়ণ সহকারে প্রকাশের দাবি কুমার বিশ্বজিতের

0
259

তুমি রোজ বিকেলে,’ ‘তোরে পুতলের মতো করে সাজিয়ে,’ ‘আমি নির্বাসনে যাবো না,’ ‘ও ডাক্তার,’ এর মতো অসংখ্য বাংলা গানের সঙ্গে যার কণ্ঠ লেপ্টে আছে তিনি কুমার বিশ্বজিৎ। আশির দশক থেকে বাংলা গানের দর্শকদের মাতিয়ে রাখছেন তিনি।

এখনো তার কন্ঠে গানের সুর একটুও ম্লান হয়নি। তিনি রয়েছেন বাংলা গানের সাথে। দিন দিন আরো যেন তীক্ষ্ণ হচ্ছে তার গানের প্রতি ভালোবাসা। কণ্ঠশিল্পী পরিচয় ছাড়াও         একাধারে তিনি গীতিকার, সুরকার এবং সংগীত পরিচালক। সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকরা সমাজের দর্পণ। সাংবাদিকরা তাদের সততা দিয়ে সংবাদ লিখেন। সব ধরণের খবর প্রকাশ করে থাকেন তারা। বিনোদনের অনেক খবর প্রকাশ করা হয়। সেখানে সিনেমা নাটক এর গুরত্ব বেশি খা যায়। কিন্তু গানের সংবাদ তেমন একটা চোখে পড়ে না আমার।’

তিনি আরও বলেন, আমি একজন কন্ঠশিল্পী হিসেবে বিনোদন জগতের সাংবাদিকদের কাছে দাবি জানায়, সকল বিনোদনের সংবাদে আমাদের সংগীতের সংবাদগুলো গুরত্বসহকারে যেন প্রকাশ  করা হয়। আমাদের যারা নতুন শিল্পী আছে তাদেরকে সমানভাবে গুরত্বসহকারে তাদের সংবাদ প্রকাশ করার একটা প্রচলন আনতে হবে। আমাদের পাশে আপনারা অবশ্যই থাকবেন।  গানের বিষয়ে জানতে কোনও সহযোগীতা লগলে আমাকে জানাবেন।’

চট্টগ্রামে বেড়ে উঠেছেন কুমার বিশ্বজিৎ, কর্মজীবনের জন্য তিনি বিভিন্ন সময় ঢাকা আসা যাওয়া করতেন। গানের প্রতি তার আলাদা টান ছিল। টান থেকে তিনি গানের জগতে প্রবেশ করেন তিনি।  পুতুলের মত করে সাজিয়ে গানটি দিয়ে সঙ্গীত ভুবনে আলোড়ন ফেলে দেন। তখন থেকেই তিনি বিখ্যাত হয়ে উঠেন। সঙ্গীত জীবনে তিনি অনেক জনপ্রিয় গান গেয়েছেন। বাংলাদেশের নামকরা প্রায় সব সঙ্গীত পরিচালকের সাথে তিনি কাজ করেছেন।

কুমার বিশ্বজিৎ ২০০৯ সাল ও ২০১১ সালে মোট দুইবার ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার’ সেরা নেপথ্য পুরুষ শিল্পী পুরস্কারে ভূষিত । এছাড়া তিনি বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পুরস্কার, জিয় স্মৃতি পুরস্কার,যায়যায় দিন, বিনোদন বিচিত্রাসহ বিভিন্ন পুরষ্কারে ভূষিত হয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here