সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ করেছে র‌্যাব

0
51

আত্মগোপনে যাওয়ার পাঁচ দিন পরেও রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। তবে তার একটি পাসপোর্ট জব্দ করেছে র‌্যাব।

র‌্যাবের মিড়িয়া উইংয়ের পরিচালক আশিক বিল্লাহ শনিবার জানান, সন্ধ্যার আগে উত্তরায় রিজেন্টের অফিস থেকে সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ করা হয়েছে। ২০২৪ সাল পর্যন্ত এই পাসপোর্টের মেয়াদ রয়েছে।

সাহেদকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে অগ্রগতি জানতে চাইলে র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার প্রধান সারওয়ার বিন কাশেম রাতে বলেন, “তাকে গ্রেপ্তারে যথেষ্ট চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তবে তার অবস্থান এখনও শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

“আমাদের ৫-৬টি টিম কাজ করছে, তারা চেষ্টা চালাচ্ছে।”

নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ জানিয়ে অভিযানে অংশ নেওয়া র‌্যাবের শীর্ষ পর্যায়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, সাহেদের আদালতে আত্মসমর্পণের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছেন না তারা।

“সাহেদ কারও না কারও সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলছে। বসে নেই। কার সাথে তার যোগাযোগ চলছে, সেই পথ খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।”

সাহেদ দেশে আছেন না কি দেশের বাইরে চলে গেছেন- এ প্রশ্নের জবাবে র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা বলেন, “তার দেশের বাইরে যাওয়ার সম্ভবনা খুব কম। সর্বত্র নজদারি রয়েছে।”

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে নমুনা পরীক্ষা না করে ভুয়া প্রতিবেদন দেওয়ার ‘প্রমাণ পেয়ে’ গত ৬ জুলাই উত্তরায় রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে আরও অনিয়ম ধরা পড়ার পর উত্তরা ও মিরপুরে রিজেন্ট হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হয়।

পরপর দুই দিন অভিযান চালিয়ে রিজেন্টের আট কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। চিকিৎসা নিয়ে প্রতারণায় উত্তরা পশ্চিম থানায় রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মোহাম্মদ সাহেদসহ ১৭ জনকে আসামি করে একটি মামলাও করা হয়।

ওই মামলায় পলাতকদের মধ্যে একজনকে পরে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে প্রথম দিনের অভিযানের পর আত্মগোপনে যাওয়া সাহেদের অবস্থান এখনও বের করতে পারেনি র‌্যাব ও পুলিশ।

বিডিনিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here