অবশেষে কামরানকে হারিয়ে মেয়র হলেন আরিফুল

0
210

গণমাধ্যম ডেস্কঃ আওয়ামী লীগের বদর উদ্দিন আহমদ কামরানকে ৬ হাজার ১৯৬ ভোটে হারিয়ে  আবারও সিলেটের নগর পিতা নির্বাচিত হলেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। শনিবার (১১ আগস্ট) স্থগিত হওয়া দুটি কেন্দ্রের ভোট গণনা শেষে আরিফুল হককে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত ঘোষণা করেন নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলিমুজ্জামান।

রিটার্নিং কর্মকর্তা জানান, শনিবার পুনঃভোটের দুই কেন্দ্রের মধ্যে হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আরিফুলের ধানের শীষ ১০৫৩ ভোট এবং কামরানের নৌকা ৩৫৪ ভোট পেয়েছে।

আর গাজী বোরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আরিফুলের ১০৪৪ ভোটের বিপরীতে কামরান পেয়েছেন ১৭৩ ভোট।

 স্থগিত থাকা ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের গাজী বোরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের হবিনন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হয়। পরে ভোটগণণা শেষে নির্বাচনের এ ফল ঘোষণা করেন নির্বাচন সংশ্লিষ্টরা।

আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, গাজী বোরহান উদ্দিন গরম দেওয়ান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আরিফুল হক ভোট পেয়েছেন ১ হাজার ৪৪টি আর আওয়ামী লীগের কামরান ১৭৩ ভোট পেয়েছেন।

হবিনন্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে কামরান ৩৫৪ এবং আরিফুল হক পেয়েছেন ১ হাজার ৫৩ ভোট।

ওই দুই কেন্দ্রে মোট ভোটার ৪ হাজার ৭৮৭টি জন। এর মধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন ২ হাজার ৮১৩জন ভোটার।

গত ৩০ জুলাই বরিশাল ও রাজশাহীর সঙ্গে সিসিকেও নির্বাচন হয়। ওই দুই সিটিতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জয়ী হলেও সিলেটে কামরানের চেয়ে এগিয়ে থাকেন আরিফুল হক।

১৩২ কেন্দ্রে তার ভোট ছিলো ৯০ হাজার ৪৯৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান পেয়েছিলেন ৮৫ হাজার ৮৭০ ভোট।

অনিয়মের অভিযোগে স্থগিত কেন্দ্র দুটিতে শনিবার ভোট হয়। সবমিলিয়ে সিসিক নির্বাচনে ১৩৪টি কেন্দ্রে  মোট ৯২ হাজার ৫৯৩ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন আরিফুল হক চৌধুরী। আর কামরান পেয়েছেন মোট ৮৬ হাজার ৩৯৭ ভোট।

এদিকে শনিবার সংরক্ষিত ৭নং ওয়ার্ডে (১৯, ২০ ও ২১) সমান সংখ্যক ভোট পাওয়া দুই কাউন্সিলর নির্বাচনেরও ভোট হয়। এতে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন জীপ গাড়ি প্রতীকের প্রার্থী নাজনীন আক্তার কণা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here