সুসময়ে – দুঃসময়ে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত

0
168
ভারতিয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেছেন, সুসময়ে ও দুঃসময়ে ভারত বাংলাদেশের পাশে থাকবে। আজ বাংলাদেশ চরমপন্থিদের দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে এবং সাহসী সমাজ হিসেবে সাফল্য অর্জন করেছে। শনিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের মিলনায়তনে ভারতীয় হাইকমিশনের উদ্যোগে মুক্তিযোদ্ধা শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।
শ্রিংলা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে একটি শক্তিশালী সম্পর্কের ভিত স্থাপন করেছিলেন। বর্তমানে বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে এ সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছে গেছে।তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানীত করতে ভারত সরকার বিভিন্ন উদ্যোগ নিয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে মুক্তিযোদ্ধা শিক্ষাবৃত্তি। এর আওতায় ২০০৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত সাড়ে ১২ হাজার শিক্ষার্থীকে ২১ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে।
ভারতীয় হাইকমিশনের উদ্যোগে মুক্তিযোদ্ধা শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, ২০১৭ সালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত সফরের সময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে তিনটি উদ্যোগের ঘোষণা দিয়েছিলেন। এগুলো হলো- নতুন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান বৃত্তি প্রকল্প, অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধাদের ভারতে বিনামূল্যে চিকিৎসা এবং সকল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য পাঁচ বছরের মাল্টিপল এন্ট্রি ভিসা।তিনি আরো বলেন, ২০১৭ সালে নতুন মুক্তিযোদ্ধা বৃত্তি প্রকল্প চালু হয়। এই প্রকল্পের আওতায় পরবর্তী ৫ বছরে ১০ হাজার শিক্ষার্থীকে স্নাতক এবং উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে বৃত্তি প্রদান করা হয়। এ প্রকল্পে ৩৫ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে। পুরাতন এবং নতুন প্রকল্পগুলো একত্রিত হলে ভারত সরকারের দ্বারা মুক্তিযোদ্ধা বৃত্তি প্রকল্পের জন্য মোট ৫৬ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে। হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা আরো বলেন, এছাড়া খুলনা থেকে কলকাতা রেল পথে বন্ধন এক্সপ্রেস চালু হওয়ার পর অনেকে বরিশাল এক্সপ্রেস চালু করার কথা বলেছিলেন। সেই বিষয়টিও আমাদের চিন্তায় রয়েছে।মুক্তিযোদ্ধা একাডেমি ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ড. আবুল আজাদের সভাপতিত্বে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন ৯নং সেক্টর কমান্ডার ক্যাপ্টেন মাহফুজ আলম বেগ, বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুস বরিশাল-৪ আসনের সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথ, বরিশাল সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ, বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল, শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের নাতি এ কে ফাইয়াজুল হক রাজু।আরো উপস্থিত ছিলেন, বরিশালের জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মোশারফ হোসেন, বরিশাল রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি আজাদ মিয়া প্রমুখ।অনুষ্ঠানে বরিশাল বিভাগের ১২০ জন শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরতদের ৫০ হাজার টাকা ও হাইস্কুলের শিক্ষার্থীদের ২০ হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here