হঠাৎ বুকের ব্যথায় অসুস্থ খালেদা জিয়া

0
182
বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া হঠাৎ বুকে ব্যথা অনুভব করায় তাকে সিটিস্ক্যান করা হয়েছে বলে জানান বিএসএমএমইউয়ের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন।
তিনি বলেন, সিটিস্ক্যানের রেজাল্ট কি আসে তা দেখে আমারা সিদ্ধান্ত নিবো পরবর্তিতে তাকে কি চিকিৎসা দেওয়া যায়।
তবে হাস্পাতাল সূত্র বলছে, তিনি হঠাৎ বুকের ব্যথায় অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বিধায় তাকে সিটিস্ক্যান করা হচ্ছে।
বুধবার (২৪অক্টোবর) দুপুর আড়াইটার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কেবিন ব্লকের নীচ তলায় তার সিটিস্ক্যান করা হয়।
আড়াইটার দিকে তাকে পূর্নরায় তাকে কেবিন ব্লকের ৬১২ রুমে নিয়ে যাওয়া হয়।
বেগম জিয়াকে সিটিস্ক্যান করতে নেওয়ার সময় তাকে হাস্যউজ্জল মুখেই দেখা যায়।
নেবিব্লো রংয়ের শাড়িরটা বেশ কিছুটা সাদা কাপড়ে ঢাকা ছিল। কেমন আছেন জিজ্ঞাস করলে তিনি কোন জবাব না দিলেও হাসছিলেন।
সিটিস্ক্যান করার কারণ জানতে চাইলে ব্রিগেডিয়ার হারুন বলেন, আমাদের এখানে প্রতিদিন ডাক্তারা টাইম টু টাইম তাকে  দেখতে যান।   খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে। ভর্তির পর এখন পর্যন্ত তার অবস্থার কোনও অবনতি হয়নি।
আশা করছি তিনি অল্প সময়ের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠবেন।
তবে ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) ড্যাবের মহাসচিব ড.এ জেড এম জাহিদ হোসেন অভিযোগ করে বলেন, সিটিস্ক্যানের দায়িত্বে থাকা ড.নজরুল ইসলামকে বের করে দিয়ে, হাস্পাতালের পছন্দ অনুযায়ী চিকিৎসক দিয়ে তারা সিটিস্ক্যান করিয়েছে।
তিনি বলেন, বেগম জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে যে কঠোর গোপনীয়তা করা হচ্ছে। তাতে রোগী আত্বীয় দের দেখা করা কিংবা কারো দেখা করা সম্ভব হচ্ছে না। বিশেষ করে রোগীর মানুষিক উন্নতির জন্য তার শুভাকাঙ্ক্ষীদের সাক্ষাৎ প্রয়োজন। তাকে উৎসাহ দেওয়া প্রয়োজন।
তিনি বলেন, নাজিমুদ্দিন রোডেও ছিল আইজোলেশন এখন এখানে ছোট ঘরে আইজোলেশন তাতে রোগী কত দিন সময় লাগবে সুস্থ হতে আল্লাই জানে। তবে আমারা খালেদা জিয়াকে হুইল চেয়ারে করে না হেটে আসতে দেখতে চাই।
প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আদালতের নির্দেশে শনিবার (৬ অক্টোবর) বিকালে নাজিমুদ্দিন রোডেন পুরাতন কারাগার থেকে এনে বিএসএমএমইউ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে ৬১২ নম্বর কেবিনে চিকিৎসাধীন আছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here