হাসপাতাল ও জেদাজেদির রাজনীতি

0
159

বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কোন হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হবে, তা নিয়ে এখন প্রবল রাজনীতি হচ্ছে। ঘটনাপ্রবাহ দেখে মনে হচ্ছে এটাই এখন দেশের এক নম্বর সমস্যা। দেশের মানুষের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ ভাগ্য যেন এই সিদ্ধান্তের উপরই নির্ভর করছে। সরকার এবং বিএনপি দুপক্ষের আচরণই বাড়াবাড়ি বলে মনে হচ্ছে। এক পক্ষ গো ধরে বসে আছেন ইউনাইটেড কিংবা অ্যাপোলো ছাড়া অন্য কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা নয়। আর অপর পক্ষ কিছুতেই রাজি হচ্ছেন না এই দুই হাসপাতালের কোনটিতে নিতে। অবস্থা এখন এমন একপর্যায়ে উপনীত হয়েছে, মনে হচ্ছে- চিকিৎসা নয়, হাসপাতালটিই বুঝি বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যে অসুস্থ- এটা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশের কোনো সুযোগ নেই। উনি যখন বাইরে ছিলেন, এমনকি যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন, তখনো উনার পায়ে সমস্যা ছিল। কোমরেও সমস্যা ছিল। হাঁটতে অসুবিধা হতো। একাধিকবার অপারেশনও করিয়েছেন। চিকিৎসা করাতে সৌদি আরবে গিয়েছেন। এসবই ছিল দৃশ্যমান। তারও চেয়ে বড় কথা, উনার বয়স হয়েছে। এই বয়সে হাড়ের নানা ধরনের রোগ খুবই স্বাভাবিক। তার উপর এখন তিনি জেলখানায়। সেখানে উনার এই শারীরিক সমস্যা বাড়তেই পারে।

কাজেই অসুস্থতা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই, প্রশ্ন হচ্ছে হাসপাতাল নিয়ে। এই যে অসুস্থতা এবং হাসপাতাল, এর মাঝে কিন্তু আরও একটি ধাপ রয়েছে, সেটি হচ্ছে চিকিৎসা। আমি বুঝতে পারি না, কোনটি বেশি গুরুত্বপূর্ণ? চিকিৎসা নাকি হাসপাতাল? হাসপাতাল পছন্দ হয়নি বলে চিকিৎসা না নিয়ে যদি জেলখানাতেই কেউ বসে থাকেন তাহলে কি রোগের মাত্রা দিনদিন আরও বেড়েই যাবে না? এই ঝুঁকি বেগম জিয়া কেন নিচ্ছেন বুঝতে পারি না। চিকিৎসা নাকি জেদ কোনটা গুরুত্বপূর্ণ সেটাও আমার কাছে দুর্বোধ্য ঠেকে।

একথা সত্য যে, চিকিৎসার সঙ্গে রোগীর আস্থার একটা বিষয় রয়েছে। আবার সেই সঙ্গে রয়েছে সামর্থ্যরে বিষয়টিও। এসব রয়েছে বলেই, বাড়ির পাশের হাসপাতাল রেখে অনেকে দূরবর্তী কোনো চিকিৎসকের কাছে যান। দেশ ছেড়ে কেউ কেউ যান বিদেশে।

আইনের সব মারপ্যাচ আমরা সাধারণ মানুষেরা ভালো বুঝি না। খালেদা জিয়াকে যদি তার চাহিদা অনুযায়ী ইউনাইটেড কিংবা অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়, আইনের কি বিশাল কোনো লঙ্ঘণ হয়ে যাবে? দেশে আইনের শাসন বলতে কিছু নেই- এমন সত্য প্রতিষ্ঠিত হয়ে যাবে? কিংবা, এটা কি মৃত লোককে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে পুলিশ দেখেছে বলে যে মামলা কদিন আগে হলো, তার চেয়েও বেশি বেআইনি হয়ে যাবে? সব দেখে হতাশ লাগে। আমাদের দেশ থেকে জেদাজেদির এই রাজনীতির অবসান কবে হবে?

লেখক : সিনিয়র নিউজ এডিটর, বাংলাভিশন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here