১২ ডিসেম্বর ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস’ ঘোষণা

0
228
১২ ডিসেম্বর ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস’ ঘোষণা

এখন থেকে প্রতিবছর ১২ ডিসেম্বর ‘জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস’ এর পরিবর্তে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস’ উদযাপন করা হবে। আজ সোমবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে কোম্পানি সংশোধন আইন ২০১৮ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়। একইসঙ্গে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট সংশোধন আইন ২০১৮ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়।বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।তিনি জানান, এখন থেকে প্রতিবছর ১২ ডিসেম্বর ‘জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস’-এর পরিবর্তে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস’ উদযাপন করা হবে।‘আজকের (সোমবার) বৈঠকে কোম্পানি (সংশোধন) আইন-২০১৮-এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন এবং বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) আইন ২০১৮-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।’জানা গেছে, কোম্পানি সংশোধন আইন ২০১৮ অনুযায়ী এখন এক ব্যক্তিই পাবলিক বা প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি গঠন করতে পারবেন। কোম্পানির মেমোরেন্ডাম (স্মারক) ও আর্টিকেলস (বিধি)- এ কোম্পানির মালিকের উত্তরাধিকার বা মনোনীত ব্যক্তির সম্মতিপত্র সংযোজন করে দিতে হবে।সংশোধিত আইনের ভূমিকায় বলা হয়েছে, দেশে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার লক্ষ্যে ব্যবসা ও বিনিয়োগ সহজীকরণ, এক ব্যক্তি কোম্পানি গঠন, কোম্পানির সাধারণ পাওনাদারদের ও সংখ্যালঘু শেয়ারহোল্ডারদের স্বার্থ সংরক্ষণ সমীচীন ও প্রয়োজনীয়। সংশোধনীতে ১৯৯৪ সালের ১৮ নং আইনের ২ ধারার (১) (ট) (ই) এর শুরুতে ‘এক-ব্যক্তি কোম্পানি ব্যতীত’ শব্দগুলো সংযোজন করা হবে। এ ছাড়া ১৯৯৪ সালের ১৮ নং আইনের ২ ধারার (১) (ট) (ই) এর পর নতুন উপধারা (ঈ) সংযোজনের প্রস্তাব করা হয়েছে।

সংযোজনে বলা হয়েছে, এক-ব্যক্তি কোম্পানি বলতে একজন ব্যক্তি কর্তৃক গঠিত কোম্পানিকে বুঝাবে।কোম্পানি আইনে ১৯৯৪ সালের ১৮ নং আইনের ৫ ধারায় সংশোধনের প্রস্তাব অনুযায়ী, পাবলিক লিমিটেড গঠনের ক্ষেত্রে সাত বা ততোধিক ব্যক্তি, প্রাইভেট কোম্পানি গঠনের ক্ষেত্রে দুই বা ততোধিক ব্যক্তি শব্দগুলোর পর ‘এবং এক ব্যক্তি কোম্পানির ক্ষেত্রে একজন ব্যক্তি’ শব্দগুলো সংযোজন করা হবে। ‘আইনানুগ যেকোনও উদ্দেশ্যে, নির্গমিত কোম্পানি গঠন করতে পারবে, এবং তা করতে চাইলে তাহারা তাহাদের শব্দগুলোর পর ‘বা তাহার’ শব্দ সংযোজিত হবে এবং ‘নাম সংঘ স্মারক’ শব্দগুলোর পর ‘বা স্মারকে’ শব্দগুলো সংযোজিত হবে।

আরটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here