৩০ অক্টোবর থেকে সংসদ নির্বাচনের কাউন্ট-ডাউন: সিইসি

0
199
৩০ অক্টোবর থেকে সংসদ নির্বাচনের কাউন্ট-ডাউন: সিইসি

আগামী ৩০ অক্টোবর থেকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কাউন্ট-ডাউন শুরু হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এ কে এম নূরুল হুদা।শনিবার দুপুরে নির্বাচন কমিশনের আয়োজনে খুলনার জিয়া হল চত্বরে ইভিএম প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিইসি এসব কথা বলেন।প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, আগামী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে।  নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে জাতির উদ্দেশে ভাষণ এবং নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হবে।নির্বাচনে সেনা মোতায়েন প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিগত দিনে প্রয়োজনে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। সেটি মাথায় রেখেই নির্বাচন কমিশন এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। তিনি আরও বলেন, নির্বাচনে সকল দলের অংশগ্রহণ বা অন্য কোনও বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আর আলোচনার সুযোগ নেই।নূরুল হুদা বলেন, ভোটের মর্যাদা, ভোট ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা, ভোট প্রদানের স্থায়ী সমাধান এবং ভোটারের স্বার্থ রক্ষার জন্যই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। ইভিএম জোর করে চাপিয়ে দেয়া হবে না। এখনও ইভিএমের আইনগত ভিত্তি হয়নি। ১৯৭২ সালের গণপ্রতিনিধিত্ব আইন সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়েছে। এটি সংশোধন হলেই আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম প্রয়োগ করা হবে। তবে সকল কেন্দ্রে সম্ভব না হলেও পর্যায়ক্রমে জাতীয় ও স্থানীয় সকল নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের পরিকল্পনা রয়েছে।সিইসি বলেন, ভোটের রাতে কেন্দ্র ও ব্যালট বাক্স পাহারা দেয়ার প্রয়োজন হবে না। একই সঙ্গে এ পদ্ধতিতে ব্যালট পেপার ছিনতাই, রাতেই ব্যালট বাক্স ভর্তি এবং একজনের ভোট অন্যজনে দেয়ার কোনও সুযোগ থাকবে না। আইনগত ভিত্তি এবং সবার কাছে গ্রহণযোগ্য হলেই কেবল ইভিএম ব্যবহার করা হবে।বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের বিরোধিতার প্রসঙ্গ এনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, যারা ইভিএমের বিরোধিতা করছেন, তারা আসলে ইভিএম সম্পর্কে না জেনেই করছেন। ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে যেমন ত্রুটি হয়, কোনও কোনও ক্ষেত্রে ইভিএমেও ত্রুটি হতে পারে। আর সেটি হলে অবশ্যই পদক্ষেপ নেওয়া হবে। কিন্তু প্রযুক্তির এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে আমাদেরও এগিয়ে যেতে হবে।অনুষ্ঠানে খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মো. লোকমান হোসেন মিয়া, খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, রেঞ্জ ডিআইজি মো. দিদার আহম্মদ, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. হুমায়ুন কবীরসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।  আরটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here