৬’শ কোটি টাকার জাহাজ রফতানির আদেশ পেয়েছে ওয়েস্টার্ন মেরিন

0
163

বিদেশ থেকে ৬.০৬ বিলিয়ন টাকার জাহাজ নির্মাণের আদেশ পেয়েছে ওয়েস্টার্ন মেরিন। চট্টগ্রামে দেশের শীর্ষ এ জাহাজ প্রস্তুত কোম্পানি ১০টি সমুদ্রগামী জাহাজ ও নৌকা তৈরি করছে তিনটি দেশে রফতানির জন্যে। নরওয়ে, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ভারতে এ দশটি জাহাজ রফতানি হবে। কোম্পানির এমডি সাখাওয়াত হোসেন এ তথ্য জানিয়েছেন। ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস

সাখাওয়াত হোসেন জানিয়েছেন, ৬টি সমুদ্রগামী জাহাজ রফতানি হবে ভারতে, একটি মাছ ধরার জাহাজ নরওয়েতে এবং তিনটি ট্যাঙ্কার নেবে আমিরাত। এছাড়া আরো ২৬টি জাহাজ, ট্যাঙ্কার ও নৌকা তৈরি হচ্ছে স্থানীয় চাহিদা মেটাতে। জার্মানি থেকে ২০০৮ সালে প্রথম জাহাজ রফতানির আদেশ পায় ওয়েস্টার্ন মেরিন। ওই বছর থেকেই বাংলাদেশের জাহাজ নির্মাণ প্রতিষ্ঠানগুলো সমুদ্রগামী জাহাজ, ফেরি, কার্গো ভ্যাসেল সহ বিভিন্ন ধরনের নৌকা ডেনমার্ক, জার্মানি, নরওয়ে, ফিনল্যান্ড, ভারত, নিউজিল্যান্ড, আমিরাত, কেনিয়া ও উগান্ডাসহ বিভিন্ন দেশে রফতানি শুরু করে।

বর্তমানে ভারতের জিন্দাল গ্রুপের জন্যে সমুদ্রগামী ৬টি জাহাজ তৈরি করছে ওয়েস্টার্ন মেরিন। এর এক একটি ৮ হাজার টন ক্ষমতাসম্পন্ন। এ তিনটি জাহাজের মূল্য পড়ছে ৩.৬০ বিলিয়ন টাকা। নরওয়েতে যে ফিশিং ট্রলারটি রফতানি হবে এর মূল্য ১.৬০ বিলিয়ন টাকা এবং আমিরাতের জন্যে তিনটি ট্যাঙ্কারের মূল্য হচ্ছে ৮৬০ মিলিয়ন টাকা। এছাড়া ওয়েস্টার্ন মেরিন তাদের জাহাজ তৈরিতে আরো আধুনিক প্রযুক্তি ও ডিজাইন ব্যবহারের উদ্যোগ নিয়েছে। শুরুতে জাহাজের প্রপেলার, শ্যাফটস ও ক্র্যাফটস বিদেশ থেকে আমদানি করতে হলেও এখন তা বাংলাদেশেই তৈরি করা হচ্ছে।

সাখাওয়াত হোসেন বলেন, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও ভারতের চেয়ে জাহাজ নির্মাণ শিল্পে বাংলাদেশে শ্রম তুলনামূলক সস্তা। ফলে আগামী ১০ বছরে এ খাতে দেশের শিল্প উল্লেখযোগ্য এগিয়ে যাবে। সরকার ও এডিপি এক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ ও অর্থ সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here