যশোরে স্কুলছাত্রীসহ তিনজন ছুরিকাহত

0
137

যশোরে পৃথক ঘটনায় স্কুলছাত্রীসহ তিনজন সন্ত্রাসীদের হাতে ছুরিকাহত হয়েছে। আহতরা হলো, স্কুলছাত্রী আনিশা (১২), হোসেন আলী জীবন (২৬) ও এজাজ আহাম্মদ (১৮)। এসব ঘটনা ঘটেছে রোববার সন্ধ্যা ছয়টা থেকে রাত আটটার মধ্যে শহরতলীর পুলেরহাট মাঠপাড়া, পূর্ব বারান্দীপাড়া ও মোল্লাপাড়ায়। আহত আনিশা পুলেরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী। সে পুলেরহাট মাঠপাড়ার আলী আহম্মদের মেয়ে। জীবন শহরের পূর্ব বারান্দীপাড়ার বাবলুর ছেলে। এজাজ আহম্মদ যশোর বিসিএমসি কলেজের ছাত্র। সে চুয়াডাঙ্গার দর্শনার জহিরুল ইসলামের ছেলে।

স্কুলছাত্রী আনিশার মা আমেনা বেগম বলেন, চাঁচড়া প্রফেসরপাড়ার ছেলে রেজওয়ান হোসেন আমার মেয়েকে প্রেমের প্রস্তাব দিতো। কিন্তু আমার মেয়ে তার প্রস্তাবে রাজি হয়নি। এদিন সন্ধ্যার পর মেয়ে প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফিরছিল। এসময় বাড়ির পাশে মাঠপাড়ায় একা পেয়ে রেজওয়ান তাকে ছুরি মারে। পরে আমরা খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসি।

আহত জীবন জানায়, আমি পেশায় রডমিস্ত্রি। একই এলাকার হানিফের ভাই সাদ্দাম আমার কাছে পঞ্চাশ টাকা পেতো। এদিন সন্ধ্যায় আমি পূর্ব বারান্দী মাঠপাড়ায় দাঁড়িয়ে ছিলাম। এসময় সে আমার কাছে টাকা চায়। কিন্তু কাছে টাকা না থাকায় আমি তার পাওনা দিতে পারিনি। এ কারণে সে আমাকে ছুরি মেরে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

এজাজ আহাম্মদ জানায়, আমি যশোর বিসিএমসি কলেজে পড়াশুনা করি এবং মোল্লাপাড়ায় ছোটর বাড়ির ছাত্রাবাসে থেকে পড়ালেখা করি। সন্ধ্যার পর আমি ঢাকা রোড থেকে ছাত্রাবাসে যাচ্ছিলাম। এসময় ৩/৪ জন দুর্বৃত্ত আমাকে ছুরি মেরে পকেটে থাকা চার হাজার টাকা ও একটি মোবাইল সেট ছিনতাই করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।
কোতয়ালী থানার ওসি অপূর্ব হাসান বলেন, এসব ঘটনার সাথে জড়িতের আটকে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here