অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন দেখতে চায় ইইউ

0
289

ন্নয়ন সহযোগী হিসেবে বাংলাদেশে শুধু অবাধ বা সুষ্ঠ নয় বরং অংশগ্রহণমূলক, স্বচ্ছ এবং গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেখতে চায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন। বাংলাদেশ এর আগে অবাধ নির্বাচন করার দক্ষতা দেখিয়েছে বলে এবারও তা পারবে বলে মনে করেন ঢাকায় নিযুক্ত ইইউ রাষ্ট্রদূত রেনসে তিরস্ক। ডিবিসি নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।

২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে ঢাকার ইউরোপীয় ইউনিয়ন মিশনের দায়িত্ব নেন রেনসে তিরস্ক। তার ঠিক কিছুদিন আগেই মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে কয়েক লাখ রোহিঙ্গা। স্বাভাবিকভাবেই বাংলাদেশের সাথে ইইউভুক্ত দেশগুলোর কূটনৈতিক এবং অন্যান্য ব্যবসায়িক সম্পর্কের পাশাপাশি প্রাধান্য পায় রোহিঙ্গা ইস্যু।

ডিবিসি নিউজকে দেয়া সাক্ষাতকারে রেনসে তিরস্ক বলেন, মিয়ানমার মানবতাবিরোধী অপরাধ করেছে। মিয়ানমারের ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ না করলেও যেসব সেনা কর্মকর্তা এসব অপকর্ম করেছে ইইউ তাদের নিষিদ্ধ করেছে এবং শিগগিরই আরও কিছু ঘোষণা আসবে।

রেনসে তিরস্ক আরো বলেন, কোন দেশের প্রতি আর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে, সেই দেশের দরিদ্র মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। আমরা তাই সেনাবাহিনীর যে সব লোকজন রোহিঙ্গা নির্যতনের জন্য দায়ী তাদের প্রতি নিষেধাজ্ঞা দিয়েছি। ভবিষ্যতে আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায় যাতে রোহিঙ্গা নির্যাতনের বিরুদ্ধে স্বোচ্চার হয় সেজন্য আমরা নানা রেজুলেশান পাশ করেছি। এখনি সুনির্দিষ্ট সময় বলতে না পারলেও ভবিষ্যতে, দায়ী সেনাসদস্যদের প্রতি ইইউ আরো নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে।

বাংলাদেশের নির্বাচন প্রক্রিয়া আগ্রহের সাথে পর্যবেক্ষণ করছে ইইউ। গ্রহণযোগ্য জাতীয় নির্বাচন বাংলাদেশের গণতন্ত্রের জন্য জরুরি বলে মনে করেন তিনি।

বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, প্রাতিষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের অনেক নির্বাচন সম্পন্ন করার দক্ষতা রয়েছে। তবে এটা শুধুই দক্ষতার ব্যাপার না। জনগণ কতটা মুক্তভাবে ভোট দিতে পারছে, এটা দেখা জরুরী। আমাদের মেথোডোলজি হলো অংশগ্রহণমূলক স্বচ্ছ এবং গ্রহণযোগ্য নির্বচন। আমরা আশা করি বাংলাদেশের দলগুলো সদিচ্ছা দিয়ে এই মানের নির্বাচন নিশ্চিত করবে।

এর আগে, জাতীয় নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠালেও এবার ইইউ নির্বাচন পর্যবেক্ষক পাঠাবে কি না তা এখনই বলা সম্ভব নয় বলে জানান ইইউ রাষ্ট্রদূত। – ডিবিসি

অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন দেখতে চায় ইইউ

উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে বাংলাদেশে শুধু অবাধ বা সুষ্ঠ নয় বরং অংশগ্রহণমূলক, স্বচ্ছ এবং গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেখতে চায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন। ২২ সেপ্টেম্বর/১৮ #dvcnews

Posted by DBC NEWS on Friday, September 21, 2018

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here