অনুমতি না নিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করে প্রথম স্ত্রীর কাছে উল্টো টাকা দাবি

0
222

স্ত্রীর অনুমতি না নিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করে উল্টো প্রথম স্ত্রীর কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করছেন আজাহারুল নামের এক সেনা সদস্য। এছাড়া দ্বিতীয় স্ত্রীকে নির্যাতনেরও অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে আজাহারুলের স্ত্রী ফাতেমা আক্তার এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ২০০৯ সালের ২১ সেপ্টেম্বর আজাহারের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। ২০১১ সালে আজহার বগুড়া সেনানিবাসে বদলি হন। সেখানে একাধিকবার তার সঙ্গে দেখা করতে চাইলে নানা টালবাহানা করতে থাকেন আজহার। এক পর্যায়ে সার্জেন্ট সোহরাবের মাধ্যমে সাক্ষাত পেলেও দ্রুত চলে আসতে হয়েছে ফাতেমাকে। পরে ২০১৩ সালে আবার এক সেনা কর্মকর্তার মাধ্যমে আজহারের সঙ্গে দেখা করার আগ্রহ প্রকাশ করলে তার কাছে ২ লাখ টাকা দাবি করা হয়।

ফাতেমা আরও বলেন, এ ঘটনার কিছুদিন পর তার কাছে সেনানিবাস থেকে একটি চিঠি আসে। সেখানে বলা হয়, বিয়ে গোপন করে পরে বিচ্ছেদের ঘটনায় ২০১০ সালের ৯ ডিসেম্বর আজাহারুলকে চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে। কিন্তু এ খবরের সত্যতা এখনো পাওয়া যায়নি। আজহারুলই নিজেকে আড়াল করে রেখেছে। সর্বশেষ ২০১৭ সালে ঈদের আগে আজহারুল ফাতেমাকে নিজের বাড়িতে ডাকেন। সেখানে গেলে ফাতেমাকে বেধড়ক মারিপট করে আজাহারুল ও তার স্বজনরা। এ ঘটনারর পর আজাহারুলের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। পরে আজাহারুল মিথ্যা পাসপোর্ট ও ভিসা দেখিয়ে জামিন পান। বর্তমানে তার সঙ্গে ফাতেমার পরিবারের লোকজন দেখা করতে চাইলে ২ লাখ টাকা দাবি করছেন।

ফাতেমা জানান, বিয়ের পর তাকে ঘরবাড়ি তোলার জন্য ৭ লাখ টাকা দেয়া হয়েছিল। এখন আবারও টাকা দাবি করছে। এ অবস্থায় বিষয়টি সুরাহা করতে সংশ্লিষ্ট আইন প্রয়োগকারি সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ফাতেমা আক্তার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here