‘খালেদা-তারেকের নড়বড়ে অবস্থা’

0
439

খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান হচ্ছেন বিএনপির শক্তি ও ঐক্যের প্রতীক। অথচ বিএনপির এই খুঁটি দুটি এখন নড়বড়ে অবস্থায় আছে বলে মন্তব্য করেছেন লেখক ও সাংবাদিক বিভুরঞ্জন সরকার।

সম্প্রতি একটি দৈনিক পত্রিকায় একথা লিখেছেন তিনি।

বিভুরঞ্জন সরকার বলেন, প্রতিষ্ঠার চল্লিশ বছরের মধ্যে রাজনৈতিক এবং সাংগঠনিকভাবে বর্তমানে সম্ভবত সবচেয়ে খারাপ সময় অতিক্রম করছে বিএনপি। সময় বিএনপিকে পেছনে ফেলে সামনে এগুতে শুরু করেছে। দলটি এখন কি করবে ঠিক করে উঠতে পারছে না।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কারাগারে, তার ছেলে তারেক রহমান দেশান্তরে। দলের অন্য শীর্ষ নেতাদের মধ্য আছে আস্থা-বিশ্বাসের সংকট। আন্দোলন, না নির্বাচন – তা নিয়ে দলের মধ্যে আছে মতপার্থক্য। কেউ নির্বাচনে অংশ নিতে দুপায়ে খাড়া। কেউ আবার খালেদা জিয়াকে মুক্ত না করে নির্বাচনে যেতে নারাজ।

‘বেগম জিয়ার কারামুক্তি অনিশ্চিত। শরীরও খুব সচল নেই। বিএনপি নেতারাই বলছেন তিনি হাটাচলা করতে পারছেন না স্বভাবিকভাবে। তারেক রহমান কবে দেশে ফিরে দলের দায়িত্ব গ্রহণ করতে পারবেন, সেটা আল্লাহ ছাড়া বান্দাদের পক্ষে বলা মুশকিল। ডিসেম্বর মাসের শেষে দেশে নির্বাচন হলে বিএনপির পক্ষে নির্বাচনী প্রচার চালাবেন কারা? বিষয়টি কি এমন হবে যে ঐশী শক্তিবলে রাজনীতির গতিপ্রকৃতি বিএনপির নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে?’

বিভুরঞ্জন সরকারের ভাষায়, বিএনপি এখন বিদেশিদের কাছে ঘন ঘন ধরনা দিচ্ছে, নালিশ জানাচ্ছে। বিদেশিরা যে বাংলাদেশের নির্বাচন বা সরকার ব্যবস্থায় বড় কোনো বদল ঘটাতে পারবে না, বাংলাদেশ যে এখন কোনো দেশের হুকুমবরদার নয়, এটা বিএনপি বুঝতে পারছে না। বিএনপি এক সময় ভারতবিরোধিতাকে রাজনীতির প্রধান উপজীব্য করেছিল, সুফলও পেয়েছিল। এখন তারা বুঝেছে ভারতবিরোধিতা বাংলাদেশের ক্ষমতার রাজনীতির ভরকেন্দ্র নেই। তারা এখন ভারতমুখি। কিন্তু ভারতের বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জনের জন্য বিএনপিকে অপেক্ষা করতে হবে। তারা যে সত্যি বদলেছে তার প্রমাণ দিতে হবে।

বিদেশিরা বিএনপির কাছে স্পষ্ট করে যেটা জানতে চায় সেটা হলো তারা নির্বাচনে যাবে কি না?

‘এই প্রশ্নের এক কথায় জবাব দিতে বিএনপি যতদিন গড়িমসি করবে, ততদিন বিএনপিকে বিদেশিদের কাছে হাজিরা অব্যাহত রেখে আমরা তো নির্বাচনে যেতে চাই, তবে –, কিন্তু –,পরিবেশ ইত্যাদি ধরনের প্রভৃতি বলতে হবে আর ততদিনে নির্বাচনী ট্রেন স্টেশন ছাড়ার শেষ হুইশেল বাজিয়ে দেবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here