পানিশূন্যতা রোধে যেসব খাবার খাবেন

0
56

শীত শেষ। বাড়ছে গরম। বড় হচ্ছে দিন। প্রচণ্ড তাপ,ধুলাবালি,ঘাম, ক্লান্তি,পিপাসা এখন নিত্যদিনের সঙ্গী। এসময় পানিশূন্যতা বা ডিহাইড্রেশন অন্যতম সমস্যা।

পানিশূন্যতার অন্যতম বড় লক্ষণ হচ্ছে গলা শুকিয়ে আসা, প্রস্রাব কমে যাওয়া, ক্লান্ত লাগা, কোষ্ঠকাঠিন্য, মাথা ঘোরা, বমিভাব, মাথাব্যথা, ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়া, গিঁটে ব্যথা। এর যেকোনোটি থেকেই তৈরি হতে পারে ভয়ংকর সমস্যা।

তাই এ ধরনের লক্ষণ দেখা দিলে সবার আগে পানিশূন্যতা দূর করার চেষ্টা করতে হবে। প্রতিদিন অন্তত ৬-৮ গ্লাস পানি পান করতে হবে। আবার কেউ শারীরিক পরিশ্রম করলে বা ব্যায়াম করলে ৮-১০ গ্লাস পানি পান করতে হবে। নারী, পুরুষ, শিশু এবং তাদের বয়স ও শারীরিক আকৃতিভেদেও পানির পরিমাণ কম-বেশি হতে পারে।

এই সময়ে পানিশূন্যতা দূর করতে যেসব খাবার খেলে উপকার পাওয়া যাবে চলুন জেনে নেই।

পানি:পানিশূন্যতা দূর করতে পানি পান করার কোনো বিকল্প নেই। এই আবহাওয়ায় ঠান্ডা ও গরম পানি মিলিয়ে পান করতে পারেন। খেয়াল রাখতে হবে খুব বেশি গরম পানি বা ঠান্ডা পানি শরীরের জন্য ক্ষতিকারক।

দই: দইতে প্রায় ৮৫ শতাংশ পানি পাওয়া যায়। ইলেকট্রোলাইটস ও প্রোটিনের দারুণ উৎস, যা আপনার হৃৎপিণ্ডসহ শরীরের অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গ স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে।

স্ট্রবেরি: স্ট্রবেরিতে প্রায় ৯১ শতাংশ পানি আছে। প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আর ফ্ল্যাভোনয়েডস আছে, যা মস্তিষ্কের জন্য উপকারী।

সবজি: টমেটোতে পানির পরিমাণ প্রায় ৯৫ শতাংশ। লেটুসপাতায় আছে ৯৫ শতাংশ পানি। আর ব্রকলিতে প্রায় ৮৯ শতাংশ পানি থাকে। তাই এই শীতে পানির বদলে খাওয়া যেতে পারে এসব সবজি।

স্যুপ: স্যুপে যে প্রচুর পানি থাকে সেটা তো আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এই মৌসুমে প্রচুর স্যুপ খাওয়া যেতে পারে। নানা মৌসুমি সবজির সঙ্গে মাংস মিশিয়ে তৈরি করতে পারেন স্যুপ।

শসা: এই সময়ে শসা খেতে পারেন। শসায় রয়েছে ৬৯ দশমিক ৭ শতাংশ পানি। কাঁচা খেতে ভালো না লাগলে একটু দই আর পুদিনা পাতা মিশিয়ে জুস করে পান করতে পারেন।

আপেল: প্রচুর পরিমাণে ফাইবার ও ভিটামিন সি সমৃদ্ধ আপেলে ৮৬ শতাংশ পানি থাকে। আর কমলা খেলেও কমে যাবে পানিশূন্যতা। মৌসুমি নানা ফল খেতে পারেন।

বাঁধাকপি: বাঁধাকপির ৯৫ শতাংশই পানি। এতে আছে অন্যান্য নিউট্রিয়েন্ট। প্রচুর পরিমাণে আঁশ আছে।

ফুলকপি: ৯২ শতাংশ পানি ছাড়াও ফুলকপিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, ভিটামিন কে আছে। যা অতিরিক্ত কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে এবং ক্যানসার প্রতিরোধ করে।

সূত্র : ঢাকাটাইমস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here