বাংলাদেশি হাজিদের কেউ দেশে না ফিরলে দায় হজ এজেন্সির: হাব

0
218

বাংলাদেশি হাজিদের কেউ যদি দেশে না ফিরে সৌদি আরবে অবস্থান করে তাহলে তার দায় নিতে হবে সংশ্লিষ্ট হজ এজেন্সিকে।ফলে সৌদি সরকারি নির্ধারিত জরিমানাও গুনতে হবে বলে জানিয়েছেন হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) মহাসচিব শাহাদাত হোসেন।

তিনি বলেন, সম্প্রতি সৌদি সরকার মেয়াদ উত্তীর্ণ ভিসাধারীর এবং দেশে না ফেরা বা ফিরতে বিলম্বকারীদের তথ্য চেয়ে একটা বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে, এটা শুধু বাংলাদেশিদের জন্য নয়, যারাই সৌদিতে হজ পালনের উদ্দেশ্যে গেছেন সবার জন্যই প্রযোজ্য। তথ্য না দিলে সংশ্লিষ্টদের উপরেই দায় চাপবে।এক্ষেত্রে হাবেরও কিছু করার নেই।

হাব মহাসচিব আরো বলেন, বর্তমানে সৌদিতে কাজের জন্য ভিসা নিতে ২ লাখ টাকা লাগে আর হজে যেতে লাগে ৩ লাখের উপরে। এক্ষেত্রে মনে হয় না কোনো হাজি হজ করার নাম করে সৌদিতে থেকে যাবেন।তার পরেও যদি এ রকম হয় সেটিকে হাব কখনো প্রশ্রয় দেবে না। সৌদি সরকারের দন্ড তাকে নিতে হবে।

ধর্মমন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, গত বছরেও বেশ কিছু হাজি নির্দিষ্ট সময়ের পরে দেশে ফিরেছেন। কয়েকজন ফিরেও আসেননি। তাদের বিরুদ্ধে সরকার শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছিল। এ বছরও এর ব্যত্যয় ঘটবে না।যদি কোনো হাজি দেশে না আসে তাহলে সংশ্লিষ্ট হজ এজেন্সিকে সৌদি সরকারকে জরিমানা দিতে হবে। তবে যদি এজেন্সি জরিমানার অর্থ পরিশোধ না করে তাহলে সেই এসেন্সিকে নিষিদ্ধ করতে পারে সৌদি সরকার। অথবা সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে যদি বাংলাদেশ সরকারকে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করে তাহলে ধর্মমন্ত্রনালয় সংশ্লিষ্ট এজেন্সির বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবে হজ ব্রত পালনের উদ্দেশ্যে গমনকারীদের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে দেশে না ফেরা বা ফিরতে বিলম্বকারীদের তথ্য জানাতে বলেছে। তথ্য না জানালে এক লাখ রিয়াল জরিমানা করা হবে হাজি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানকে। এক্ষেত্রে জন প্রতি এ জরিমানা আদায় করা হবে বলে রোববার সৌদি সরকার এক আদেশ জারি করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here