ভাণ্ডারিয়ায় মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণ, প্রেপ্তার এক

0
35

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার হরিণপালা এলাকায় নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক মাদ্রাসা ছাত্রী (১৬) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মেয়েটির মা লম্পট সাইফুল মৃধাকে আসামি করে রোববার রাতে ভাণ্ডারিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ সাইফুল মৃধাকে গ্রেপ্তার করেছে। সে উপজেলার হরিণপালা গ্রামের হারুন মৃধার ছেলে। মেয়েটি হরিণপালা দাখিল মাদ্রাসায় নবম শ্রেণীতে পড়া লেখা করে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গোছে, মেয়েটিকে এবং তার বৃদ্ধ নানাকে বাড়ীতে রেখে মেয়েটির মা  তার অসুস্থ বোনকে দেখতে পার্শ¦বর্তী মঠবাড়ীয়া উপজেলার একটি ক্লিনিকে যায়।

গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এ সুযোগে লম্পট সাইফুল ইসলাম কৌশলে মেয়েটির ঘরের জানালা খুলে ঘরে প্রবেশ করে মেয়েটিকে বিছানায় একা পেয়ে তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এবং ভুল বুঝিয়ে ধর্ষণ করে। পরে তার মা বাড়ীতে এলে মেয়েটি তার মাকে এ ঘটনা জানায়। এ ঘটনায় রোববার রাতে মেয়েটির মা বাদী হয়ে ভাণ্ডারিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

ভাণ্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মাসুমুর রহমান বিশ্বাস জানান, এঘটনায় ভাণ্ডারিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ এ মামলার একমাত্র আসামী সাইফুল মৃধাকে গ্রেপ্তার করে সোমবার পিরোজপুর জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here