মেধাবীরা কেন অসুখী হয়?

0
390

মেধাবীরা, বিশেষ করে যাদের আইকিউ লেভেল অনেক উঁচুতে, জীবনের প্রায় সব ক্ষেত্রেই সফল হয়। ভালো চাকরি, শিক্ষা, সামাজিক অবস্থান – সকল ক্ষেত্রেই তারা এগিয়ে আছেন। তারপরও এসব মেধাবীরা জীবনের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্র থেকে হরহামেশাই বঞ্চিত হয় – তারা সুখ খুঁজে পায় না। মেধাবীরা হয় অসুখী – কিন্তু কেন? ট্রুথ ইনসাইড অব ইউ

মেধাবীরা জীবনের প্রতিটি বিষয়কে সূক্ষাতিসূক্ষভাবে বিশ্লেষণ করে। যেকোনো পরিস্থিতির সাথে স্বাভাবিকভাবে খাপ খাওয়াতে তারা পারে না, বরং সেই পরিস্থিতিকে নিজের অনুকূলে নিতে চেষ্টা করে, যা তার জন্য মাঝেমধ্যে পীড়াদায়ক হয়ে ওঠে। এই অতিরিক্ত চিন্তা ও পরিস্থিতি অনুকূলে নেয়ার প্রবণতায় সবকিছু তারা অর্জন করলেও, সুখী হতে পারে না।

নিজেদের মানকে মেধাবীরা অনেক উঁচুতে তুলে রাখে। তারা জানে তারা কি চায়, কি অর্জন করতে পারবে। সেক্ষেত্রে, কোনো বিষয়ে ছাড় দেয়ার প্রতি অনাগ্রহ দেখা যায়।

মেধাবীরা নিজেরাই নিজেদের বড় সমালোচক। নিজেদের অর্জন, আচরণ নিয়ে সর্বদাই তারা অতিরিক্ত বিশ্লেষণ করে। ফলে, তারা কখনোই নিজেদের অর্জন নিয়েও সুখী হতে পারে না।

বাস্তবতা সর্বদাই কঠিন। তারা সারাক্ষণই জীবনের অর্থ খুঁজতে চেষ্টা করে। ছোট ছোট বিষয়গুলো থেকে তারা তৃপ্ত হয় না। তারা এটাও বুজতে পারে না যে, জীবন সবসময়ই সবকিছু দেবে না।

মেধাবীরা প্রায়শই অন্যদেরকেও নিজেদের সমকক্ষ ভাবে, যা সবসময় নাও হতে পারে। ফলে মেধাবী ব্যক্তি তার মতো করে চলতে পারাদের খুঁজে বেড়ায়। না পাওয়া গেলেও তারা একাকিত্ব বোধ করে।

অধিক মেধাবীদের অনেকেই মানসিক সমস্যায় ভোগে। উদ্বেগ, বাইপোলার সিন্ড্রোমের মতো মানসিক সমস্যা উচ্চ আইকিউ থাকা মানুষদের মধ্যে প্রবল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here