সুবীর নন্দীকে হারানোর তিন বছর

0
26

একুশে পদকপ্রাপ্ত বাংলা গানের কিংবদন্তী সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দী চলে যাওয়ার তিন বছর পূর্ণ হলো। ২০১৯ সালের এই দিনে (৭ মে) সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রয়াত হন তিনি।

৮ মে ঢাকায় আসে তাঁর মরদেহ। এরপর ঢাকেশ্বরী মন্দির, শহীদ মিনার, এফডিসি ও চ্যানেল আইতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

দেশে ১৮ দিনের চিকিৎসা শেষে সংকটাপন্ন সুবীর নন্দীকে আরও উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহায়তায় সে বছরের ৩০ এপ্রিল এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে সিঙ্গাপুর নেয়া হয়। সেদিন বিকেলেই সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে এই শিল্পীর চিকিৎসা শুরু হয়। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না এই গুণী শিল্পীর। দেশে ফিরতে হলো নিথর দেহে।

বরেণ্য সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দী দীর্ঘ ৪০ বছরের ক্যারিয়ারে গেয়েছেন আড়াই হাজারেরও বেশি গান। বেতার থেকে টেলিভিশন, তারপর চলচ্চিত্রেও উপহার দিয়েছেন অসংখ্য জনপ্রিয় গান।

১৯৮১ সালে তাঁর প্রথম একক অ্যালবাম ‘সুবীর নন্দীর গান’ বাজারে আসে ডিসকো রেকর্ডিংয়ের ব্যানারে। সুবীর নন্দী প্রথম গান করেন ১৯৭৬ সালে আবদুস সামাদ পরিচালিত ‘সূর্যগ্রহণ’ চলচ্চিত্রে। চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করে পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছেন তিনি।

সংগীতে অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত করেন কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দীকে।

তাঁর কণ্ঠে কিছু সাড়া জাগানো গান থাকলো এখানে:

দিন যায় কথা থাকে:
১৯৭৬ সালে ‘সূর্যগ্রহণ’ সিনেমায় কণ্ঠ দেওয়ার মধ্য দিয়ে প্লেব্যাক করার সুযোগ লাভ করেন সুবীর নন্দী। তবে ১৯৭৯ সালে মুক্তি পাওয়া ‘দিন যায় কথা থাকে’ সিনেমার শিরোনাম গানটি সুবীর নন্দীকে এনে দেয় তুমুল জনপ্রিয়তা। এই গানই যেন বাংলা সংগীতাঙ্গনে তার জন্য বিছিয়ে দেয় লালগালিচা।

পাখিরে তুই দূরে থাকলে:
সুবীর নন্দী এই তুমুল জনপ্রিয় গান গেয়েছেন ‘লাল গোলাপ’ সিনেমায়। তার ‘পাখিরে তুই দূরে থাকলে’ গানটি এখনো মুখে মুখে শোনা যায়।

কত যে তোমাকে বেসেছি ভাল:
১৯৮৬ সালে ‘উছিলা’ সিনেমায় গাওয়া ‘কত যে তোমাকে বেসেছি ভাল’ সুবীর নন্দীর জনপ্রিয়তাকে পৌঁছে দেয় আকাশছোঁয়া জায়গায়।

আমার এ দুটি চোখ পাথর তো নয়:
১৯৮৪ সালে আলমগীর কবিরের ‘মহানায়ক’ সিনেমায় ‘আমার এ দুটি চোখ পাথর তো নয়, তবু কেন ক্ষয়ে ক্ষয়ে যায়’ গানটিও বেশ সাড়া ফেলে তখনকার দর্শক-শ্রোতাদের মাঝে। শুধু তাই নয়, এই গানটিই সুবীর নন্দীকে এনে দেয় প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই
‘পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই’ও জনপ্রিয়তা পায় সমান তালে। লোকমুখে ঘুরতে থাকে এই গানগুলো।

একটা ছিল সোনার কন্যা:
নন্দিত কথাসাহিত্যিক প্রয়াত হুমায়ূন আহমেদ পরিচালিত ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’ সিনেমায় ‘একটা ছিল সোনার কন্যা’ কথার গানটি সুবীর নন্দীকে শুধু তৃতীয় জাতীয় পুরস্কারই এনে দেয়নি; বরং তাকে বাংলা সংগীতাঙ্গনে অমরত্বের স্থানে পৌঁছে দিয়েছে।

ও আমার উড়াল পঙ্ক্ষী রে:
‘শ্রাবণ মেঘের দিন’ সিনেমারই আরেক গান ‘ও আমার উড়াল পঙ্ক্ষী রে’ সমানতালে জনপ্রিয়তা পায়, ছড়িয়ে পড়ে লোকমুখে। নিজ কণ্ঠে গাওয়া এই গানের মতোই যেন উড়াল দিয়ে চলে গেলেন চারবার পুরস্কার পাওয়া কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দী।

সূত্র : চ্যানেল আই

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here